দেশে এসেছে এক নতুন ডিক্টেটর

স্কুল-কলেজ-ইউনিভার্সিটির স্টুডেন্টদের ভূয়া-মিথ্যা-বানোয়াট মামলায় রিমান্ডে নিয়ে আর জেলে ভরে হাসিনাশাহীর শান্তি হইতেছে না। সাথে টার্গেট হইছে নারীরা। ঘর থেকে, রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যাইতেছে।

বর্ণালী চৌধুরী লোপার ঘটনাটা আজকে প্রথম আলোতে আসছে।

কি অপরাধ উনার?

প্রথম আলো জানাচ্ছে:

“বর্ণালীর বয়স ৩৫। ৪ আগস্টের ভাঙচুরের ঘটনায় এই ব্যবসায়ী নারী কী করে আসামি হলেন? এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বলেছেন, বর্ণালীর মুঠোফোন পরীক্ষা করে দেখা গেছে, তিনি আন্দোলনকারীদের মাঝে খাবার বিতরণ করেছিলেন। এর মানে তিনি এ ঘটনার সঙ্গে যুক্ত।”

প্রতিটা বিবেকবান, গণতন্ত্রকামী মানুষের উচিত এই কুৎসিত পুলিশ স্টেট, এই নোংরা ডিক্টেটরশীপের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া।